দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ পৌরসভা এলাকায় সংখ্যালঘু এক পরিবারের পৈত্রিক সম্পত্তি দখল করে সেই জমিতে বহুতল ভবণ নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে। মালিকানা নিয়ে সুপ্রীম কোর্টে বিচারাধীন অবস্থায় স্থানীয় প্রভাবশালী ডা. মনিরুজ্জামান শক্তিপদ বণিকের পৈত্রিক ২৪ শতাংশ জমি দখলে নিয়ে বহুতল ভবণ নির্মাণের সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দিয়েছেন।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন শক্তিপদ বণিক।

দখলকৃত জমিটি তার বাবার তিন ভাইয়ের নামে ছিল দাবি করে শক্তিপদ বণিক বলেন, এই জমিটি দখলদার মনিরুজ্জামানের বাবা নুরুজ্জামান সরকার প্রথমে তার সম্বন্ধী (স্ত্রীর বড় ভাই) সাইদুর রহমানের নামে জাল দলিল দেখিয়ে দখল নিতে মামলা করেন। এই মামলাটি প্রায় ৪৭ বছর ধরে চলছিল। কিন্তু আদালত ২০১৩ সালে ১৭ ফ্রেব্রুয়ারি জমির প্রকৃত মালিকের পক্ষে রায় প্রদান করেন। তবে কৌশলে ডা. মনিরুজ্জামান তার স্ত্রী জাহানারা বেগমের নামে হেবা দলিল করে দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। সেই যাত্রায়ও ব্যর্থ হলে এবার চলতি বছরের ১ আগস্ট জোরপূর্বক জমিটি নিজের নামে জাল হেবা দলিল করে সেখানে এখন বিশতলা বহুতল ভবন নির্মাণ করছেন, যার কাজ এখন চলমান।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিষয়টি চাঁদপুর পুলিশ সুপার, মতলব থানার ওসি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পৌর মেয়রকে জানিয়ে কোনো লাভ হয়নি। আমরা সংখ্যালঘু হওয়ার কারণে মনিরুজ্জামান উল্টো হুমকি দিয়ে চলেছেন। প্রধানমন্ত্রীকে ছাড়া কাউকে তোয়াক্কা করেন না বলে আমাদের বার বার হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। সংবাদ সম্মেলনে এ সময় শক্তিপদ বণিকের ছেলে দীলিপ বণিকসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/কেএ/এপি/এজেড/অক্টোবর ০৬, ২০১৫)