thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ মে 24, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,  ২০ জিলকদ  1445

কারসাজি চক্রের প্রভাবে সূচকের পতন, কঠোর অবস্থানে বিএসইসি

২০২৪ এপ্রিল ২১ ১৩:২৯:০৫
কারসাজি চক্রের প্রভাবে সূচকের পতন, কঠোর অবস্থানে বিএসইসি

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক:দেশের পুঁজিবাজারে মূল্যসূচকের পতনের পেছনে নতুন কৌশলে কারসাজি করছে একদল দুষ্ট চক্র। তাদের হাতে থাকা কোম্পানিগুলোর শেয়ার ইচ্ছাকৃতভাবে এক বিও হিসাব থেকে লোকসানে বিক্রি করে অন্য নামের বিও হিসাব থেকে নিজেই ক্রয় করেন। ফলে বাজারে অস্থিরতা বাড়িয়ে আবার সেসব শেয়ার আরও কম দামে কিনে নেয় এসব চক্র। এতে মূল্যসূচকের পতনে তাদের উদ্দেশ্য হাসিলের পাশাপাশি কম দামে বিক্রিত শেয়ার কিনে তারা সাধারণ বিনিয়োগকারীদের নিঃস্ব করে তুলছে। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সার্ভেইল্যান্স টিমের অনুসন্ধানে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

বিএসইসি সূত্র জানায়, এসব কারসাজিতে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসইসি। এসব কারসাজির সাথে জড়িত ব্রোকারেজ হাউজগুলোকে চিহ্নিত করে যোগ্য বিনিয়োগকারী হিসেবে আইপিও কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। একইসঙ্গে যেসব ব্যক্তি এসব কারসাজির সঙ্গে জড়িত তাদেরকে জরিমানার আওতায় নিয়ে আসা হবে। যেসব প্রতিষ্ঠান এসব কারসাজির সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত প্রমাণিত হলে সেসব প্রতিষ্ঠানের (ব্রোকারেজ ও মার্চেন্ট ব্যাংক) সনদ নবায়ন স্থগিতসহ শিগগরই কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে বলে বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে।

বিএসইসির এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, একটি বড় মূলধনী কোম্পানির শেয়ার ৩৫০ টাকায় লেনদেন শুরু হয়। দুষ্ট চক্রের হাতে থাকা এই কোম্পানির শেয়ার তারা একটি বিও থেকে লোকসানে বিক্রি করে একই সুবিধাভুগী ব্যক্তির অন্য নামে আরেকটি বিও হিসাবে কম দামে শেয়ার ক্রয় করে। ফলে পুঁজিবাজারের মূল্যসূচকে বড় প্রভাব পড়ে। বাজারে নেতিবাচক প্রভাব দেখে ওই কোম্পানির সাধারণ বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কিত হয়ে তাদের হাতে থাকা শেয়ার আরও কম দামে বিক্রি করে দেয়। এই সুযোগটাই লুফে নেয় সূচকের পতনের নেপথ্যে নতুন কারসাজি চক্র। তারা বাজারে আতঙ্ক সৃষ্টি করে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের শেয়ার আরও কম দামে কিনে মুনাফা লাভের জন্য এ ফন্দি আঁটছে। ফলে প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বড় মূলধনী কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দামে নেতিবাচক প্রভাব অন্যান্য কোম্পানির শেয়ারের দামেও পড়ে। এসব কোম্পানির শেয়ারদর সামান্য কমলেও সূচকে নেতিবাচক প্রবণতা দেখা যায়। এতে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে যেমন আতঙ্কের সৃষ্টি হচ্ছে, তেমনি কম দামে শেয়ার বিক্রির চাপে লাগাতার পতন কাটিয়ে উঠতে পারছে না দেশের শেয়ারবাজার। তবে বাজারে তারল্য প্রবাহ কম থাকায় কোনভাবেই স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পারছে না দেশের শেয়ারবাজার। এ অবস্থায় বাজারে তারল্য প্রবাহ বৃদ্ধির বিকল্প নেই বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

(দ্য রিপোর্ট/মাহা/২১এপ্রিল দুইহাজার চব্বিশ)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর