thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১,  ৬ মহররম 1446

আইএমএফের বৈঠক ২৪ জুন, পাস হতে পারে বাংলাদেশের ঋণের তৃতীয় কিস্তি

২০২৪ জুন ১৫ ০৫:০৬:৩৭
আইএমএফের বৈঠক ২৪ জুন, পাস হতে পারে বাংলাদেশের ঋণের তৃতীয় কিস্তি

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক:আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিলের (আইএমএফ) নির্বাহী পরিষদের আগামী বৈঠকে বাংলাদেশের ঋণের তৃতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ের বিষয়টি উপস্থাপন করা হবে। সেখানে প্রস্তাবটি অনুমোদন হলে পরবর্তী এক-দুদিনের মধ্যে অর্থ ছাড় হবে। এবার তৃতীয় কিস্তি বাবদ ১১৫ কোটি ২০ লাখ ডলার দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। টাকার বড় ধরনের অবমূল্যায়নের কারণে কিস্তির অর্থও বেড়েছে।

শুক্রবার আইএমএফের নির্বাহী পরিষদের বৈঠকে ২৪ জুনের সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে আইএমএফের সদর দপ্তরে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টায়।

এতে দেখা যায়, ওই তারিখে নির্বাহী বোর্ডের বৈঠকে বাংলাদেশের অনুক‚লে ঋণের তৃতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ের পর্যালোচনা প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করা হবে। এ বৈঠকে প্রস্তাবটি অনুমোদন হলেই ২৫ বা ২৬ জুনের মধ্যে বাংলাদেশ ঋণের অর্থ পেয়ে যাবে।

এর আগে ঋণের কিস্তির অর্থ ছাড়ের বিষয়ে আইএমএফের দেওয়া শর্ত বাস্তবায়ন ও অর্থনৈতিক সংস্কারের অগ্রগতি দেখতে ২৪ এপ্রিল সংস্থাটির একটি মিশন ঢাকায় আসে। তারা ৮ মে পর্যন্ত অবস্থান করে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে বৈঠক করে। এতে শর্ত বাস্তবায়নের অগ্রগতি ও ভবিষ্যৎ সংস্কার কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চায়। প্রতিনিধিদলটি ঢাকা ত্যাগের আগে এমন বার্তা দিয়ে যায়, শর্ত বাস্তবায়নের অগ্রগতিতে তারা খুশি। ঋণের তৃতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ের বিষয়ে প্রতিবেদনে সুপারিশ করবেন। তারা আশা প্রকাশ করেন, নির্বাহী পরিষদ ঋণের অর্থ ছাড়ের প্রস্তাবটি অনুমোদন করবে।

গত বছরের ৩১ জানুয়ারি আইএমএফ বাংলাদেশের অনুক‚লে ৪৭০ কোটি ডলারের ঋণ প্রস্তাব অনুমোদন করে। এর মধ্যে দুই কিস্তিতে ১১৬ কোটি ডলার ছাড় করা হয়েছে। এখন তৃতীয় কিস্তি বাবদ ১১৫ কোটি ডলার ছাড় করার পর্যায়ে রয়েছে।

এদিকে আইএমএফের শর্ত বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইতোমধ্যে ঋণের সুদের হার বাজারভিত্তিক করেছে। এতে সুদহার বেড়েছে। ডলারের দামে ক্রলিং পেগ (একটি সীমার মধ্যে থেকে ওঠানামা) পদ্ধতি চালু করেছে। এতে ডলারের দাম এক দিনের ব্যবধানে ৮ টাকা বেড়েছে। এখন ডলারের দাম বাজারভিত্তিক করার বিষয়ে কাজ করছে। জ্বালানি তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করছে। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছে। বিভিন্ন খাতে ভর্তুকি কমানো হচ্ছে।

সূত্র জানায়, আইএমএফের তৃতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ে দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়ে যাবে। বৃহস্পতিবার দেশের নিট রিজার্ভ ছিল ১৯২১ কোটি ডলার। ঈদের রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ায় রিজার্ভ আরও কিছুটা বাড়বে। ফলে ঋণের অর্থ ছাড় হলে এবার রিজার্ভ আবার ২ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। এতে রিজার্ভে সাময়িক স্বস্তি মিলবে। তবে জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহেই এশিয়ান ক্লিয়ারিং ইউনিয়নের (আকু) দেনা বাবদ ১০০ কোটি ডলারের বেশি অর্থ পরিশোধ করতে হবে। এতে রিজার্ভ আবার কমবে।

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

অর্থ ও বাণিজ্য এর সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য - এর সব খবর