thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬,  ২০ জিলহজ ১৪৪০

জাতীয় শিল্প মেলা শুরু হচ্ছে রোববার

২০১৯ মার্চ ৩০ ১৭:৫৩:২৭
জাতীয় শিল্প মেলা শুরু হচ্ছে রোববার

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক:অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থান বাড়ানোসহ দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য ও সেবা স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে সম্প্রসারণের লক্ষ্যে দেশে প্রথম জাতীয় শিল্প মেলার আয়োজন করছে শিল্প মন্ত্রণালয়।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৩১ মার্চ (রোববার) সকাল ১০টায় সাত দিনব্যাপী অনুষ্ঠেয় এ মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার মতিঝিল শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘প্রথম জাতীয় শিল্প মেলা ২০১৯’ উপলক্ষে আয়োজিত এক প্রেস বিফিংয়ে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এসব তথ্য জানান। এসময় শিল্প সচিব মো. আবদুল হালিম, অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন কর্পোরেশন ও সংস্থার প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

মেলার আয়োজন সম্পর্কে শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলাসহ বিভিন্ন মেলা হয়ে থাকে। কিন্তু এবারই প্রথম জাতীয় শিল্প মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। পণ্য বিক্রির ব্যবস্থা থাকলেও এ মেলার মূল উদ্দেশ্য- দেশে বিনিযোগ বাড়ানো। আমাদের মন্ত্রণালয়ের অধীনে সম্পত্তিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা আছে। বিনিয়োগকারীরা আমাদের কাছে আসলে আমরা তাদের এ সুবিধাগুলো প্রদান করতে পারব।

এ মেলা দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য এবং সেবা স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রচার, প্রসার, বিক্রয় ও বাজার সম্প্রসারণে সহায়তা করবে। এ ছাড়া বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, মাইক্রো, কুটির, হস্ত ও কারু এবং হাইটেক শিল্প উদ্যোক্তাদের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়ন, যোগাযোগ এবং সেতুবন্ধন তৈরিতে সহায়তা করবে। সর্বোপরি শিল্প খাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ উৎসাহিত ককবে।

প্রথমবারের মতো মেলায় সারাদেশ থেকে বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, মাইক্রো, কুটির, হস্ত ও কারু এবং হাইটেকসহ মোট ৩০০টি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে। তারা ৩০০টি স্টলে নিজেদের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শন করবেন। উদ্যোক্তাদের মধ্যে ১১৬ জন নারী উদ্যোক্তা এবং ১০৭ জন পুরুষ উদ্যোক্তা রয়েছেন। অর্থাৎ মেলায় ৫২ শতাংশ নারী উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করছেন।

মেলায় যেসব পণ্য প্রদর্শিত হবে:

মেলায় দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য, আইটি পণ্য, প্লাস্টিক ও সিনথেটিক পণ্য, হস্তশিল্প, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যারসহ অন্যান্য বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, মাইক্রো, কুটির, হস্ত ও কারু এবং হাইটেক শিল্পের স্বদেশি পণ্য প্রদর্শিত ও বিক্রয় হবে। এবারের মেলার বিশেষ আকর্ষণ হচ্ছে- কোনো বিদেশি পণ্য এ মেলায় প্রদর্শন কিংবা বিক্রয় করা হবে না।

আয়োজকদের পক্ষে থেকে জানানো হয়, দেশীয় পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রয়ের পাশাপাশি এ মেলায় ক্রেতা-বিক্রেতা মিটিং বুথ, পিআইডি’র মিডিয়া সেন্টার এবং তথ্য কেন্দ্রের স্টল থাকবে।

এ ছাড়া মেলা প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু কর্নার এবং শেখ হাসিনা কর্নার স্থাপন করা হবে। যেখানে ১৯৫৬ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের শিল্প, বাণিজ্য, শ্রম, দুর্নীতি দমন ও গ্রাম সহায়তা মন্ত্রী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে তার সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবন ও কার্যক্রম সংক্ষেপে তুলে ধরা হবে। একই সঙ্গে বর্তমানে শিল্প খাতের উন্নয়নে সরকার বাস্তবায়িত কর্মসূচি ও উন্নয়ন কার্যক্রম প্রদর্শন করা হবে। বিশেষ করে গত দশ বছরে শিল্পখাতে অর্জিত সাফল্য তুলে ধরা হবে।

মেলা উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব’ শীর্ষক একটি সেমিনার আয়োজন করা হবে। ৩১ মার্চ শুরু হওয়া এ মেলা চলবে আগামী ৬ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলার কার্যক্রম চলবে। মেলায় কোনো প্রবেশ মূল্য থাকবে না।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/মার্চ ৩০, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

অর্থ ও বাণিজ্য এর সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য - এর সব খবর