thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬,  ৮ রবিউস সানি 1441

‘আপনারা আমাকে নিয়েও একটু ভাবুন’

২০১৯ অক্টোবর ১৬ ১৮:৪১:৪৫
‘আপনারা আমাকে নিয়েও একটু ভাবুন’

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: আপনারা আমাকে নিয়েও একটু ভাবুন। বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) ছাড়া কোনো বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল তার কর্মসূচি কাভার করে না জানিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মো. মুরাদ হাসান বার্তা প্রধানদের উদ্দেশ্যে আন্তরিক হয়ে কিছু আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের বার্তা প্রধানদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী এই আহ্বান জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘পাঁচ মাসেরও বেশি সময় ধরে আমি তথ্য মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। আমি সঠিকভাবে কাজ করে যাওয়ার চেষ্টা করছি। আমি আপনাদের প্রত্যেকের আন্তরিক সহযোগিতা চাইছি। আপনারা তথ্য মন্ত্রণালয়ের অবিচ্ছেদ্য অংশ, ঠিক একইভাবে আমিও।’

তিনি বলেন, ‘আমি এখানে অপূর্ণ ও অসম্পূর্ণ থাকব যদি আমি আপনাদের সবার সদয় ও আন্তরিক সহযোগিতা না পাই। মন্ত্রী মহোদয় এই মন্ত্রণালয়ের অভিভাবক, উনি রাষ্ট্রের সকল গুত্বপূর্ণ তথ্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে জাতীয় ইস্যুতে বলে থাকেন। আমার ওইভাবে এত কথা বলার প্রয়োজনীয়তা নেই। তারপরও উনি যখন থাকেন না অথবা বিভিন্ন অনুষ্ঠানগুলোতে যান…মন্ত্রী মহোদয় সব অনুষ্ঠানে যেতে পারেন না, তখন আমাদের বলেন, আমি যাই।’

‘হয় কী তখন...আমাদের বিটিভির ক্যামেরা-ওরা তো যায়ই, দেখা যায়, আমাদের বেসরকারি প্রায় ৩৫টি চ্যানেল এর পাশাপাশি অনলাইন পোর্টালগুলো আছে। তারা অনেক সময়ই যেতে পারে না। এগুলো বড় পার্ট হয়ে গেছে, এটা অস্বীকার করার উপায় নেই। সবাইকে উদ্দেশ করে বলছি, তারা হয়তো জানতে পারেন না বা যায় না। এই জায়গাটায় একটা বড় শূন্যতা বা গ্যাপ হচ্ছে। সবাই একটু যোগাযোগ করলে আমরা আমাদের প্রগ্রাম বো কাজ সম্বন্ধে জানাবো’

মুরাদ হাসান বলেন, ‘আমার কর্মসূচিগুলো আমাদের পিআরও, পিএস, এপিএস আপনাদের কাছে পাঠাবে। এক্ষেত্রে আমার অনুরোধ হলো আপনারা যদি আপনাদের ক্যামেরা, রিপোর্টার পাঠান তবে শূন্যতাটা কাভার হবে। এটা আমি পাঁচ মাস ধরে অনুভব করছি, আমার উপলব্ধিতে বারবার এসেছে।’

তিনি বলেন, ‘শুধু বিটিভি যাচ্ছে, বিটিভি হয়তো বড় একটা অংশ কাভার করে রুরাল এরিয়ায়। আরবান এরিয়ায় প্রাইভেট চ্যানেলগুলোই মানুষ দেখে থাকে। এ কারণে বড় গ্যাপ তৈরী হচ্ছে। আপনাদের আন্তরিক প্রত্যাশা ছাড়া এই গ্যাপ পূরণ সম্ভব না।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে থেকে আপনাদের সঙ্গে সম্পর্কটা ডেভেলপ যেন হয়। আন্তরিক দৃষ্টি আমার প্রতি যেন থাকে যে, মুরাদ ভাই কোথায় গেল, তার আজকে কী প্রোগ্রাম? আপনারা আমাকে নিয়েও একটু ভাবুন। এটা আমার জন্য অনেক ভালো হবে।’

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে আজকের অনুষ্ঠানের উপস্থিত সবাই মুগ্ধ হয়েছে। তথ্য প্রতিমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/অক্টোবর ১৬,২০১৯)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর