thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬ আশ্বিন ১৪২৭,  ৪ সফর 1442

৭ দিনে ভালো আয় করার সুযোগ পাচ্ছেন সাড়ে ৫ লাখ তরুণ

২০২০ আগস্ট ১৪ ১৫:১৯:৪৬
৭ দিনে ভালো আয় করার সুযোগ পাচ্ছেন সাড়ে ৫ লাখ তরুণ

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: দেশের সাড়ে ৫ লাখেরও বেশি তরুণ সাত দিনে ভালো আয় করার সুযোগ পাচ্ছেন। এই সুযোগটি করে দিচ্ছে জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২১ প্রকল্প।

২০২১ সালের ২-৮ জানুয়ারি ৭ দিনব্যাপী সারাদেশে একযোগে শুরু হবে এই জনশুমারি ও গৃহগণনা ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এই প্রকল্পে গণনাকারী হিসেবে কাজ করবেন ৪ লাখ ৮২ হাজার তরুণ। এরা ৭ দিনে ৮ হাজার টাকা করে পাবেন। পাশাপাশি সুপার ভাইজার হিসেবে কাজ করবেন আরো ৮২ হাজার তরুণ। এরা পাবেন সাড়ে ৮ হাজার টাকা করে।

ফলে প্রকল্পের আওতায় ৭ দিনে ৫ লাখ ৬৪ হাজার তরুণ আয় করার সুযোগ পেতে যাচ্ছেন। প্রকল্প ব্যয়ের ৫৫ শতাংশ ব্যয় এই খাতে হবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

সূত্র মতে, এবার জনশুমারি প্রকল্পে কাজ করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে শিক্ষিত বেকারদের। এর আগে জনশুমারির কাজে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকদের। তবে এবার তাদের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকছে না। ৭ দিনে চার কোটি খানায় (পরিবার) তথ্য সংগ্রহ করা হবে। একজন গণনাকারী ১০০টি খানার তথ্য সংগ্রহ করবেন।

জানা যায়, এর আগে পঞ্চম শুমারিতে গণনাকারীদের মাত্র ২ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছিল। এবার ৪গুণ বাড়িয়ে তা ৮ হাজার টাকা করা হয়েছে। প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ১ হাজার ৭৬১ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) জানিয়েছে, স্বচ্ছতার মাধ্যমে জনবল নিয়োগের কাজ চলছে। স্থানীয় প্রশাসন ও বিবিএস-এর সমন্বয়ে সর্বোচ্চ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

৬ষ্ঠ শুমারিতে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিক ও বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকদেরও গণনায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এবারের শুমারি শুরু হওয়ার আগে প্রথমবারের মতো জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিবিএস সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী ২০১৯ সালের ২৯ অক্টোবর একনেক সভায় ২ জানুয়ারি ২০২১ তারিখ জিরো আওয়ারকে শুমারি রেফারেন্স পয়েন্ট হিসেবে ধার্য করেন। শুমারি চলাকালীন ২ থেকে ৮ জানুয়ারি শুমারি সপ্তাহ পালন ও শুমারি শুরুতে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয়ার জন্য একটি সার সংক্ষেপ অনুমোদিত হয়েছে।

বিবিএস জানায়, বিশ্বজুড়ে কোটিরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। এদের বাদ দিয়ে আর জনশুমারি নয়। একইসঙ্গে বাংলাদেশে অবস্থানরত সব বিদেশিদের গণনার আওতায় আনা হবে। কেউ যেন বাদ না পড়ে সেই লক্ষ্যে জনশুমারির আওতায় দেশের সব নাগরিককে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এই কাজ শতভাগ সফল করতে স্থানীয় প্রশাসনকে চিঠি দেবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)।

জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২১ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (যুগ্মসচিব) জাহিদুল হক সরদার বলেন, খানা তালিকা প্রণয়নের জন্য প্রথম বারের মতো শুমারিতে মূল শুমারির পূর্বে লিস্টিং অপারেশন পরিচালনা করা হবে। প্রতিটা খানার জন্য একটি ইউনিক হাউজহোল্ড আইডি দেয়া হবে। মোবাইলসহ ডিজিটাল পদ্ধতিতে লিস্টিং অপারেশন শুরু হবে। এতে কয়েক ধরনের তথ্য নেওয়া হবে।

বিবিএস সূত্র জানায়, প্রথমবারের মতো মাল্টিমোড পদ্ধতিতে তথ্য সংগ্রহ করা হবে। মাল্টিমোডের মধ্যে রয়েছে, মোবাইল অ্যাপ, ওয়েব অ্যাপ, ড্রপ অ্যান্ড পিক, পেপার বেইজড, কল সেন্টার ইত্যাদি। এর মাধ্যমে দেশে প্রথমবারের মতো সীমিত আকারে ই-সেন্সাস পরিচালনা করা হবে। ই-সেন্সাসে যারা তথ্য দিতে আগ্রহী তারা হাউজ হোল্ডের আইডি দিয়ে তথ্য দিতে হবে। তবে কেউ যদি ই-সেন্সাসে জনশুমারির তথ্য দিতে না চায় তাহলে বিবিএস’র কর্মীরা প্রশ্নপত্র নিয়ে ফরম পূরণ করে আনবেন।

স্যাটেলাইট ইমেজ দেখে জনশুমারিতে সারাদেশে গণনাকারীরা তথ্য সংগ্রহ করবেন।ঢাকা ও রংপুর সিটিতে প্রথমবারের মতো সীমিত আকারে ই-সেন্সাস পরিচালনা করা হবে।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/১৪আগস্ট, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর