thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,  ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

তৈমুর-আইভীর ভোটযুদ্ধ আজ

২০২২ জানুয়ারি ১৬ ০৭:০৫:৪৬
তৈমুর-আইভীর ভোটযুদ্ধ আজ

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: শঙ্কা ও সম্ভাবনার নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। তৈমুর-আইভী নিয়ে অবিরাম আলোচনা-সমালোচনার পর শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) মধ্যরাতে শেষ হয় নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম। আজ রোববার (১৬ জানুয়ারি) সকালে শুরু হবে ভোট গ্রহণ।

প্রাচ্যের ড্যান্ডি খ্যাত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে মেয়র পদে লড়ছেন দুই হ্যাভিওয়েট প্রার্থী। চার বারের নির্বাচিত নারায়ণগঞ্জ পৌর মেয়র চুনকা কন্যা ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী লড়ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। হাতি প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন তিনি।

রোববার দেখা যাবে কতদূর গড়ায় এ জল। নির্বাচনী আমেজ আর রাজনৈতিক গুটি চালাচালির শেষ লগ্নে কার ঘরে ওঠে মেয়রের মুকুট। ভোটের দিন পরিস্থিতি নিয়ে শঙ্কায় স্থানীয়রা। ভোট জালিয়াতির কোনও সম্ভাবনা না দেখা গেলেও জনগণ চাইছে 'সুষ্ঠু' নির্বাচন। তবে নুরুল হুদার নির্বাচন কমিশনের বিগত দিনে ভোট কারচুপি অভিজ্ঞতা থেকে আদতে শঙ্কামুক্ত থাকতে পারছেন না স্থানীয় ভোটাররা।

আওয়ামী লীগের মাঠের রাজনীতির এ লগ্নে জল গড়িয়েছে হাই কমান্ড অব্দি। বরাবরের মতই শামীম ওসমানের দিকে আইভীর ইঙ্গিতের তীর। বিগত বক্তব্যগুলোতে আইভী বলেন, মুখে নৌকার কথা বললেও মাঠের প্রচারণায় পাচ্ছেন না তাকে (শামীম ওসমান)।

এদিকে তুড়ির উপর এসব আলাপ উড়িয়ে দিয়েছেন শামীম ওসমান। তার বক্তব্যে- আম গাছ, কলা গাছ যে কেউ নৌকা নিয়ে দাঁড়ালেই সমর্থন দিবেন তিনি। এদিকে 'শামীম ওসমানের প্রার্থী তৈমুর আলম' বলে দাবিও করেছিলেন আইভী।

শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জ মহানগরীর ফতুল্লার দেওভোগে নিজ বাসায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, আমি সবসময় শান্তির পক্ষে। আমি মনে করি না যে, সে রকম কিছু হবে আমার তরফ থেকে। আমার ওই ধরনের কোনো বাহিনী নাই। আমি কোনো দিন সহিংসতা করিও নাই।

অন্যদিকে, মনোনয়নের পরই, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির আহ্বায়ক পদ থেকে প্রত্যাহার করা হয় তৈমুরকে। তারপরও মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব এ টি এম কামালসহ অসংখ্য নেতা-কর্মীরা প্রত্যক্ষ প্রচারণায় নামছেন জানিয়ে 'রাজনৈতিক অপকৌশল প্রয়োগ'র অভিযোগ তোলেন সরকার দলীয় একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী আইভী।

এদিকে হাতি প্রার্থী তৈমুরের অভিযোগ ঠিক উল্টো। তিনি জানান, গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামা ১৭ জন নেতা-কর্মীকে। এছাড়া ৩৭ জনের বাসায় চালানো হয়েছে পুলিশী অভিযান। গ্রেপ্তার-হয়রানি বন্ধ না হলে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে অবস্থানের ঘোষণাও দিয়েছিলেন তিনি।

তৈমুর বলেন, এখন তিনি জনতার প্রার্থী। আর ভোটের পাঁচ ঘণ্টা আগে কেউ বলার নেই যে বলবে, 'বসে পড়েন'। ভোটে সহিংসতা হলে তারই (তৈমুর) ক্ষতি হবে জানিয়ে আইভী বলেন, আমার ভোটাররা আসতে পারবে না। তার (আইভী) প্রতিপক্ষ রা এমন সহিংসতাই চাচ্ছে। এছাড়া ভোট ব্যাংক এলাকাগুলোতে কেউ শত্রুতা করে বাঁধা দিতে আসতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচন নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা।

প্রসঙ্গত, মেয়র পদে তৈমুর ও আইভী ছাড়াও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আরও ৫ জন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ৩২ জন। প্রায় ২০ লাখ মানুষের এ সিটিতে ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৭ জন। নারী ভোটার-২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১৯ আর পুরুষ ভোটার-২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৪ জন। নারায়ণগঞ্জে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ নির্বাচন কার্যক্রম চলবে ইভিএমে।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/১৬ জানুয়ারি, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর