thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭,  ১৩ রবিউল আউয়াল 1442

কর্ণফুলীতে টানেল তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে চীন

২০১৩ ডিসেম্বর ০৯ ১৫:৫৯:২৮
কর্ণফুলীতে টানেল তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে চীন

জোসনা জামান, দ্য রিপোর্ট : কর্ণফুলী নদীর তলদেশ দিয়ে টানেল তৈরি করে দিতে চায় চীন। এজন্য বড় অঙ্কের বিনিয়োগ করতে দেশটির পক্ষ থেকে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক প্রস্তাবে বলা হয়েছে, কর্ণফুলী নদীর অপরপ্রান্তে আনোয়ারা উপজেলায় সরকার যদি একটি রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল তৈরি করে তাহলে টানেল তৈরিতে ঋণ দেবে চীন।

এ বিষয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কামাল আজাদ দ্য রিপোর্টকে বলেন, চীন অনেক দিন আগেই এ প্রস্তাবটি দিয়েছে। কিন্তু এটি নিয়ে কেউ কোন কাজ করছে না। এজন্য আমরা (অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ-ইআরডি) সেতু বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে ডেকেছি। চীনের এই প্রস্তাব গ্রহণ করা যাবে কিনা, করলে আমাদের কি লাভ হবে, এসব বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। কারণ এর সঙ্গে যুক্ত আছে এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন।

এটি হলে আমাদের কি লাভ হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি জানি না। সেজন্যই আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক ডেকেছি। তাছাড়া চীন তাদের প্রস্তাবেও কোন কিছু বিস্তারিত বলেনি। তারা শুধু আগ্রহের কথা জানিয়েছে। সরকারের মতামত পেলে তারা বিস্তারিত প্রস্তাব পাঠাবে।

সূত্র জানায়, নদীর উপরে ব্রিজ তৈরি করলে নানা সমস্যা দেখা দেয়। যেমন বড় বড় জাহাজের যাতায়াত বাধাগ্রস্ত হতে পারে। এ প্রেক্ষিতে টানেল তৈরির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এই টানেল দিয়ে নির্বিঘ্নে গাড়ীসহ সকল ভারী যানবাহন চলাচল করতে পারবে।

টানেলটি তৈরিতে সাড়ে ছয় হাজার কোটি টাকার মতো ব্যয় হতে পারে বলে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) সূত্রে জানা গেছে।

এ বিষয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের যুগ্ম-সচিব ও এশিয়া উইংয়ের প্রধান আসিফ-উজ-জামান দ্য রিপোর্টকে বলেন, এটি চীনের প্রাথমিক প্রস্তাব। সেখানে কত টাকা বিনিয়োগ করবে সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলা নেই। তবে একটি টানেল তৈরি করতে সাধারণত ছয় থেকে সাড়ে ছয় হাজার কোটি টাকার প্রয়োজন হয়। সে হিসেবে ধারণা করা হচ্ছে চীন এই অঙ্কের টাকাই বিনিয়োগ করবে। তবে তাদের শর্ত হলো আনোয়ারা উপজেলায় একটি এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন তৈরি করতে হবে। এটি করতে হলে অনেক জমির দরকার। এ বিষয়ে সরকারকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

চীনের এই প্রস্তাবের বিষয়ে মঙ্গলবার একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। রাজধানীর শেরেবাংলানগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠেয় বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কালাম আজাদ। এতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উচ্চপর্যায়ের কমর্কতারা উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

বৈঠক বিষয়ে আসিফ-উজ-জামান বলেন, চীন থেকে বার বার তাগাদা দেয়া হচ্ছে। তারা সরকারি সিদ্ধান্ত জানতে চায়। এজন্য আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল নির্মাণ করা সম্ভব হবে কিনা এবং এ বিষয়ে সরকারি মনোভাব কি, এসব বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

এ বিষয়ে চীন বিষয়ক ডেস্কের দায়িত্বপ্রাপ্ত ইআরডির উপ-সচিব এ কে এম মতিউর রহমান দ্য রিপোর্টকে জানান, চীন একটি প্যাকেজের আওতায় এ প্রস্তাব দিয়েছে। তারা কত ডলার বিনিয়োগ করবে সে বিষয়ে কিছুই জানায়নি। কেননা সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর জানা যাবে টানেল তৈরিতে কত ব্যয় হবে।

(দ্য রিপোর্ট/জেজে/রা/জেএম/ডিসেম্বর ০৯, ২০১৩)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

অর্থ ও বাণিজ্য এর সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য - এর সব খবর