thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮,  ২৫ রবিউস সানি 1443

মাদারীপুর মুক্ত দিবস ১০ ডিসেম্বর

২০১৩ ডিসেম্বর ১০ ০৯:১৭:০৭
মাদারীপুর মুক্ত দিবস ১০ ডিসেম্বর

মাদারীপুর সংবাদদাতা : মাদারীপুরের সমাদ্দার এলাকায় টানা তিন দিন পাক বাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যান মুক্তিযোদ্ধারা। অবশেষে ১০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় পশ্চিম আকাশে সূর্য ঢলে পড়লে পাকসেনাদের খাদ্য ও গোলাবারুদের রসদ ফুরিয়ে গেলে পর্যুদস্ত হয়ে আত্মসমর্পণ করে। মুক্ত হয় মাদারীপুর জেলা। এই যুদ্ধেই নিহত হন জেলার সর্বকনিষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা শহীদ বাচ্চু।

জানা যায়, মাদারীপুরে আলমগীর হোসাইন, স্টুয়ার্ট মুজিব ও খলিলুর রহমান ভারতের অম্বিকাপুর থেকে প্রশিক্ষণ শেষে পুলিশ, কৃষক, ছাত্রসহ সর্বস্তরের জনতা এক হয়ে মুক্তিবাহিনী গড়ে তোলেন।

অন্যদিকে পাক হানাদার বাহিনী এ দেশীয় দোসরদের সহায়তায় গোটা এলাকায় নির্যাতন চালাতে থাকে। এক সময়ে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিরোধের মুখে পাক বাহিনী পিছু হটতে বাধ্য হয়। মুক্ত হতে থাকে নতুন নতুন এলাকা। সর্বশেষ ৭ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধারা উন্নত অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ‘সমাদ্দার’ এলাকায় পাক সদস্যদের ঘিরে ফেলে। থেমে থেমে চলতে থাকে যুদ্ধ। ৯ ডিসেম্বর দিন-রাত তুমুল যুদ্ধের পর পাকসেনাদের বাঙ্কারে খাদ্যের রসদ ফুরিয়ে গেলে ১০ ডিসেম্বর তারা সাদা পতাকা তুলে সন্ধির প্রস্তাব দেয়। অবশেষে সন্ধ্যার দিকে পাকবাহিনীর মেজর ঘটক মুক্তিযোদ্ধা মেজর খলিলের কাছে তার ক্যাপ, বেল্ট ও পিস্তল খুলে জমা দেন ও আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেন। এ সময় ৩৯ জন পাকসেনা ও ১৫ জন রাজাকার আত্মসমর্পণ করেন। মুক্ত হয় মাদারীপুর জেলা।

(দ্য রিপোর্ট/এসএইচ/শাহ/এএস/ডিসেম্বর ১০, ২০১৩)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

বিজয়ের মাস এর সর্বশেষ খবর

বিজয়ের মাস - এর সব খবর