thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫,  ১৫ মহররম ১৪৪০

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ দাবিতে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

২০১৮ মার্চ ১৪ ১৪:২৭:৪১
প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ দাবিতে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পদত্যাগ দাবি করে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।

বুধবার (১৪ মার্চ) সকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ রবিবার (১৮ মার্চ) পর্যন্ত স্থগিত ও বক্তব্য না শোনা তারা এ বিক্ষোভ করেন।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ রায় ঘোষণার পর তারা কোর্টভবন থেকে বের হয়ে মিছিল নিয়ে আইনজীবী ভবন প্রদক্ষিণ করেন।

শুধু দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খানের বক্তব্য শুনে আদেশ দেয়ার পর আদালতের ভেতরেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

খালেদা জিয়ার আইনজীবীর বক্তব্য না শোনায় প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তারা। একপর্যায়ে আদালত কক্ষ থেকে ‘শেম শেম’ বলে বের হয়ে আসেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

এ সময় বিএনপি নেত্রী আসিফা আশরাফী পাপিয়া, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, আবেদ রাজাসহ বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবিতে নানা স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

এসময় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতির কক্ষের সামনে দাঁড়িয়ে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা ধারণা করেছিলাম, চিরাচরিতভাবে আপিল বিভাগ যেটা করেন, উভয়পক্ষের বক্তব্য শোনেন, তারপর আদেশ দেন। আজ দুদকের আইনজীবী আপিলটি প্লেস করার সঙ্গে সঙ্গে আদালত বললেন আগামী রবিবার সিপি ফাইল করেন, সে পর্যন্ত জামিন স্থগিত থাকবে। আমাদের কোনো বক্তব্য তিনি (প্রধান বিচরিপতি) শুনলেন না। কোনোরকম আইনগতভাবে এই মামলাটি মোকাবেলা করার জন্য ন্যূনতম সুযোগ আমাদের না দিয়ে স্টে অর্ডার পাস করলেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা প্রধান বিচারপতিকে বলেছি, মাননীয় আদালত আমাদের কথা না শুনে কোনো অর্ডার পাস ইতোপূর্বে আমরা কখনও দেখিনি। এতে করে পাবলিক পারসেপশনে খারাপ প্রভাব ফেলবে। তিনি আমাদের কথা শুনলেন না। না শুনে বললেন, আগামী রোববার পর্যন্ত স্টে থাকবে। আগামী রোববার সিপি ফাইল করা হবে।’

সোমবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্ট খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন মঞ্জুর করেন। এর পর মঙ্গলবার এ জামিন আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্র ও দুদক চেম্বার জজ আদালতে পৃথক দুটি আবেদন করেন। শুনানি শেষে চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী কোনো আদেশ না দিয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/মার্চ ১৪, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর



রে