thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫,  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

৭ উইকেট হারিয়ে চাপে উইন্ডিজ

২০১৮ আগস্ট ০৫ ০৮:৪৪:০৪
৭ উইকেট হারিয়ে চাপে উইন্ডিজ

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৭২ রানের লক্ষ্য দেওয়ার পর বোলিংয়ে ভালো শুরু করেছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষের ৭ উইকেট তুলে নিয়েছে। ১৮.৩ ওভারে ৭ উইকেটে উইন্ডিজের রান ১৪৬।

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে মোস্তাফিজুর রহমান প্রথম দুটি বল ওয়াইড দেন। তবে ঠিক উইকেট পেয়ে যান তিনি। ১.২ ওভারে এভিন লুইসকে ১ রানে নিজের শিকার বানান বাঁহাতি পেসার। নিজের দ্বিতীয় ওভারে মোস্তাফিজ ১৭ রানে আন্দ্রে রাসেলকে মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ বানান।

পরের ওভারে সাকিব বিদায় করেন মারলন স্যামুয়েলসকে। মাত্র ১০ রানে লিটন দাসকে ক্যাচ দেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান। দিনেশ রামদিন বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি আন্দ্রে ফ্লেচারকে। রুবেল হোসেন তাকে ৫ রানে এলবিডাব্লিউ করেন।

টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান যখন ব্যর্থ হলেন, তখন ক্রিজে দাঁড়িয়ে গেলেন তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে দারুণ এক জুটিতে বাংলাদেশকে স্বস্তিতে রাখলেন তারা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ বাঁচানোর লড়াইয়ে দুজনেই পেয়েছেন ফিফটি তাতে ৫ উইকেটে ১৭১ রান বাংলাদেশের।

আগে ব্যাট করতে নেমে ধীর শুরু করেছিল বাংলাদেশ। প্রথম ওভারের তামিম ও লিটন দাসের উদ্বোধনী জুটি করে মাত্র ২ রান। পরের ওভারে অ্যাশলে নার্স তাদের বিচ্ছিন্ন করেন। দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ বলে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে ক্যাচ দেন লিটন (১)। তারপর তামিম মেরে খেলতে থাকলেও চতুর্থ ওভারের তৃতীয় বলে আবারও নার্সের কাছে ভাঙে তাদের জুটি। মুশফিকুর রহিমকে মাত্র ৪ রানে আন্দ্রে রাসেলের ক্যাচ বানান উইন্ডিজ স্পিনার। রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে আউট হলেন তিনি।

সৌম্য সরকার বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি ক্রিজে। ৭.৪ ওভারে কিমো পলের বলে পাওয়েলের ক্যাচ হন মাত্র ১৪ রানে। ৪৮ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর তামিম ৯০ রানের জুটি গড়েন সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে। ১৪তম ওভারে ব্র্যাথওয়েটের বলে পাওয়েল ক্যাচ ছেড়ে দেওয়ায় ৪৮ রানে জীবন পান তামিম। তবে পরের ওভারের প্রথম বলে হাফসেঞ্চুরি করেন তিনি ৩৫ বলে। তার দুর্দান্ত ইনিংস থামে আন্দ্রে রাসেলের বলে কিমো পল ক্যাচ নিলে। আউট হওয়ার আগের ৫ বলে ২২ রান করেন বাঁহাতি ওপেনার। ৪৪ বলে ৬ চার ও ৪ ছয়ে ইনিংস সেরা ৭৪ রান করেন তামিম।

তামিম বিদায় নেওয়ার কয়েক বল পর ক্যারিয়ারের সপ্তম হাফসেঞ্চুরি পান সাকিব। ২০১৬ সালের মার্চের পর ২০ ওভারের ক্রিকেটে প্রথমবার পঞ্চাশ ছোঁন তিনি ৩০ বলে। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে এটি ছিল তার প্রথম হাফসেঞ্চুরি।

বাংলাদেশের ইনিংস শেষ হওয়ার ৩ বল আগে আউট হন সাকিব। পলের বলে বদলি ফিল্ডার ওয়ালটনের হাতে ক্যাচ দেন অধিনায়ক। ৩৮ বলে ৯ চার ও ১ ছয় ছিল তার ৬০ রানের ইনিংসে।

ফ্লোরিডার লডারহিলে জিততেই হবে বাংলাদেশকে, যদি তারা সিরিজে টিকে থাকতে চায়। সেন্ট কিটসে প্রথম ম্যাচে তাদের হার দিয়ে শুরু হয়েছিল তিন ম্যাচের এ সিরিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের একাদশ অপরিবর্তিত থাকলেও বাংলাদেশ এনেছে একটি পরিবর্তন। মেহেদী হাসান মিরাজকে বাইরে রেখে নেওয়া হয়েছে বাঁহাতি পেসার আবু হায়দারকে।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/আগস্ট ০৫, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর