thereport24.com
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫,  ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আচরণে সন্তুষ্ট বিএনপি

২০১৮ সেপ্টেম্বর ০১ ২২:০৮:২৩
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আচরণে সন্তুষ্ট বিএনপি

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর নয়াপল্টনে আয়োজিত জনসভাকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা ছিল শহর।

মোড়ে মোড়ে অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের উপস্থিতি ছিল। নগরীর কয়েকটি স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করলেও সমাবেশস্থলে আসতে কোনও নেতাকর্মীকে বাধা দেওয়া হয়নি। বিরোধী দলের জনসভার দিনে পুলিশের নিরপেক্ষ এই অবস্থানকে সাধুবাধ জানিয়েছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

তবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও জনসভার কারণে কয়েকটি সড়ক বন্ধ থাকা ও সড়কে গণপরিবহন কম থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে নগরবাসীদের। অনেককেই গন্তব্যে পৌঁছাতে হয়েছে হেঁটে।

শনিবার সকাল থেকে সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে রয়েছে অতিরিক্ত পুলিশের সতর্ক অবস্থান। সমাবেশস্থল ও আশপাশে পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা তৎপর ছিলেন। কয়েকটি স্থানে তল্লাশি হলেও কাউকে আটক, গ্রেফতার বা সমাবেশস্থলে আসতে বাধা দিতে দেখা যায়নি।

জনসভায় পুলিশের অবস্থানকে সাধুবাদ জানিয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, ‘পুলিশের কাজ হচ্ছে জনগণের নিরাপত্তা দেওয়া। কোনও দলের আনুগত্য করা নয়। সমাবেশ করা বিএনপির গণতান্ত্রিক অধিকার। সেই সমাবেশে পুলিশ নিরাপত্তা প্রদান করে তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করেছে। তাদের নিরাপত্তার কোনও বাড়াবাড়ি দেখিনি। তাদের ধন্যবাদ।’

সন্দেহভাজনদের তল্লাশি বা আটক করা নিরাপত্তার অংশ হিসেবে উল্লেখ করে ডিএমপি মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘নিরাপত্তার খাতিরে চেকপোস্ট হয়, তল্লাশি হয়, ব্লক রেইড হয়। এগুলো সবই নিরাপত্তার ব্যবস্থার অংশ। নিরাপত্তার স্বার্থেই এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।’

সারাদিন আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছিল বলে জানান ডিএমপি রমনা জোনের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার। তিনি বলেন, ‘আজকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিত স্বাভাবিক ছিল। পুলিশ সদস্যরা তৎপর ছিলেন। কোথাও যাতে অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য আমরা সতর্ক অবস্থানে ছিলাম।’

রাজধানীতে শনিবার সমাবেশকেন্দ্রিক বিএনপি বা তার অঙ্গ সংগঠনের কোনও নেতাকর্মীকে আটক বা গ্রেফতার করা হয়নি বলে জানান ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেসন্স বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান। তিনি বলেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ছিল। কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কাউকে আটক বা গ্রেফতারও করা হয়নি।’

কয়েকটি সড়ক বন্ধ এবং গণপরিবহন কম থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে। অনেককেই গন্তব্যে পৌঁছাতে হয়েছে হেঁটে।

শনিবার বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে বেলা ১১টার পর থেকে রাজধানীর নাইটেঙ্গেল মোড় থেকে ফকিরাপুল মোড়ে দুপাশের সড়ক এবং নাইটেঙ্গেল মোড় থেকে পল্টন মোড় পর্যন্ত একটি সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। এ ছাড়া সকাল থেকে নগরীতে গণপরিবহনের সংখ্যা ছিল কম। এতে দুর্ভোগে পড়েন সাধারণ মানুষ।

ডিএমপি মতিঝিল ট্রাফিক জোনের সহকারী কমিশনার সারোয়ার হোসেন বলেন, ‘আজকে মতিঝিল এলাকায় গাড়ির সংখ্যা কম থাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক ছিল।’

শাহবাগ ট্রাফিক জোনের সহকারি কমিশনার শাহেদ আহমেদ বলেন, ‘আজকে যানজট ছিল না। শনিবার থাকায় রাস্তায় মানুষও কম ছিল।’

সড়কে গণপরিবহন কম থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের তৎপরতা আগের থেকে বেশি। যে কারণে ফিটনেসবিহীন গাড়িগুলো রাস্তায় নামতে পারছে না। এ কারণে যানবাহন কিছুটা কম হতে পারে।’

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর